বিখ্যাত ইতালিয়ান আর্টিস্ট সালভাতর বেনিনতেন্দে তার তুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে তুলেছেন মেসিকে

বুকে ঝুলানো সানগ্লাস, মাথায় লাল তারকাখচিত কালো টুপি, ঠোঁটে ঝুলানো হাভানা চুরুট, গায়ে সেই খাকি শার্ট। প্রথম দেখায় যে কেউ আর্জেন্টিনার মহান বিপ্লবী চে গেভারার সঙ্গে গুলিয়ে ফেলতে পারেন। তবে চে’র আদলে আসল মানুষটি সদ্য বার্সা ত্যাগ করা লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনার এই ফুটবল জাদুকর সম্প্রতি বার্সেলোনা ত্যাগ করেছেন। এই বিষয়টিই বিখ্যাত ইতালিয়ান আর্টিস্ট সালভাতর বেনিনতেন্দে তার তুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে তুলেছেন।

সালভাতর এর আঁকা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, চে রূপী শর্টপ্যান্ট পরা মেসি লাগেজ নিয়ে কোথাও যাচ্ছেন। এটা যে বার্সা ত্যাগের প্রতীকি অর্থ বোঝানো হয়েছে, তা উপলব্ধি করা কঠিন নয়। ২০০০ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে যোগ দিয়েছিলেন লা মাসিয়ায়। দেখতে দেখতে স্পেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর বার্সেলোনায় তিনি কাটিয়ে দিলেন ২০টি বছর। এই ক্যাম্প ন্যু থেকেই তিনি হয়ে উঠেছেন বিশ্বসেরা ফুটবলার। কেউ কখনো ভাবেনি, মেসি বার্সেলোনা ছেড়ে যেতে পারেন। কিন্তু এখন অবিশ্বাস্য হলেও এটা সত্য, মেসি বার্সা ছেড়ে দিয়েছেন।

স্পেনের বার্সেলোনার সিটি সেন্টার প্লাজা কাতালুনিয়ার সামনে একটি ক্যাবল বক্সে মেসির এই চে রূপী শিল্পকর্মটি সাঁটিয়েছেন সালভাতর বেনিনতেন্দে। ছবিটির নাম দিয়েছেন ‘গুডবাই কমান্ডার’। মেসির পরনের প্যান্টে রয়েছে বার্সার লোগো। হাতে ধরা লাগেজে সাঁটা ইংল্যান্ডের পতাকা। অন্য হাতে হয়তো বা বিমানের একটি টিকিট। মেসির মাথার পেছনে একটি লাল রংয়ের ভালোবাসার প্রতীক ‘হার্ট’-এর শেপ। বার্সার নাগরিকরা সকালে উঠে এই ছবি দেখে চমকে গেছেন। তারপর বিশ্ব মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে ছবিটি। যেটি এখন বিশ্বের প্রায় অনেক মানুষ দেখেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :