গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন,
দেশের সরকার ও বিএনপি উভয়েই বর্তমানে ‘করোনায় আক্রান্ত’। গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘গণতন্ত্র ফোরাম’ নামে এক সংগঠনের মানববন্ধনে তিনি এ কথা জানান।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সরকার করোনায় আক্রান্ত ধর্ষণ আর দুর্নীতিতে। আর বিএনপি করোনায় আক্রান্ত মাজাভাঙা রাজনীতিতে। এই করোনা থেকে সবাইকে বের হয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, ‘বিএনপি এতটা করোনাগ্রস্ত যে তারা রাস্তায় নামতে পারে না। তাদের মেরুদণ্ড ভেঙে গেছে।’

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘বর্তমানে প্রতিটি ক্ষেত্রেই আমাদের জাতি চরম দুর্দশায় আছে। এ থেকে মুক্তির একটিই পথ আমি দেখি, আমাদের সবাইকে রাস্তায় নামতে হবে।’ তিনি বলেন, দেশে যেভাবে ধর্ষণ আর গণধর্ষণ করছে ছাত্রলীগের ছেলেরা, তাতে এ দেশের মা-বোনেরা আর শান্তিতে থাকতে পারছে না। কোথাও শান্তিতে বের হবে, তারও উপায় নেই। অন্যদিকে দুর্নীতি যেভাবে ছড়িয়েছে, তাতেও সাধারণ মানুষের আর বাঁচার উপায় নেই।

দেশে সুশাসন থাকলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সারা দেশে এভাবে ধর্ষণ-গণধর্ষণের মহোৎসব চালাতে পারতেন না বলে দাবি করেন ডা. জাফরুল্লাহ। সরকারপ্রধানের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘এনাফ ইজ এনাফ। আর না। এবার ক্ষমতা ছাড়েন। অনেক হয়েছে। এভাবে দেশ চলতে পারে না। কোথাও কেউ শান্তিতে নেই।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে মূলত বঙ্গবন্ধুকেই অপমান করেছে সরকার। কারণ বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন ক্ষমতা সব সময় জনগণের হাতে ন্যস্ত থাকবে। বঙ্গবন্ধু শোষণহীন সমাজব্যবস্থার জন্য লড়াই করেছেন।’ গণতন্ত্র ফোরামের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন মানববন্ধনে।

আপনার মতামত লিখুন :